অসহায় মানুষের পাশে থেকে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন চেয়ারম্যান রাজীব

রাজনীতি

সাভার প্রতিনিধিঃ
শিল্পাঞ্চল খ্যাত সাভার উপজেলায় করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব মোকাবেলায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাজীবের দিক নির্দেশনায় এগিয়ে চলেছে উপজেলাবাসী। জনপ্রতিনিধি’র পাশাপাশি সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তিনি। রাজীবের সময়োপযোগী সিদ্ধান্তেই দেশের সর্ববৃহৎ ঘন বসতিপূর্ণ সংসদীয় এ আসনে এখনো পর্যন্ত অনেকটাই নিয়ন্ত্রনে রয়েছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন। অনেকটা নিরবেই সমাজের অসহায় আর হত দরিদ্র মানুষের মাঝে নিজে এবং দলীয় নেতা-কর্মীদের মাধ্যমে বিতরন করে যাচ্ছেন খাদ্যদ্রব্যসহ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। নির্দেশনা দিয়েছেন খাদ্য গ্রহীতার ছবি না প্রকাশ করতে। অনেকটা প্রচার বিমূখ এ জনপ্রতিনিধি সমাজের মধ্যবিত্তদের কথা চিন্তা করে পাশে দাড়িয়েছেন তাদের। সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে চালু করেছেন কল সেন্টার যার মাধ্যমে এসব পরিবারের মাঝে পরিচয় গোপন রেখে বাড়ী বাড়ী পৌছে দেওয়া হচ্ছে চাহিদানুযায়ী খাদ্যসামগ্রী। উপজেলার স্থানীয় জনপ্রতিনিধের সঙ্গে নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সিভিল প্রশাসনের সমন্বয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে উপজেলার এক প্র্রান্ত থেকে অপরপ্রান্ত ছুটে বেড়াচ্ছেন তিনি। করোনা ভাইরাসকে বিশ্ব মহামারি আখ্যা দেওয়ার পর থেকে পরিবার-পরিজনকে উপেক্ষা করেই পাশে দাড়িয়েছেন সাধারন মানুষের। উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে সরকারী ত্রান তৎপরতা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে দিয়েছেন গঠনমূলক নির্দেশনা। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিজস্ব অর্থায়নে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সহ প্রাইভেট হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক আর নার্সদের জন্য প্রদান করেছেন পারসোন্যাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই)। ব্যবস্থা করেছেন এ্যাম্বুলেন্সসহ অন্যান্য সামগ্রীরও। মাঠ পর্যায়ে কাজ করা পুলিশের জন্যও বিতরন করেছেন পিপিই। স্ব-উদ্যোগী হয়ে নিজের বাড়ীসহ প্রতিষ্ঠানের ভাড়া ১ মাসের জন্য মওকুফ করেছেন। আহ্বান জানিয়েছেন উপজেলার বিত্তবানদের এগিয়ে আসার। তার আহ্বানে সাড়া দিয়েই নিম্ন বিত্ত পরিবারগুলোর প্রায় ৫০ লাখ টাকার বাড়ী ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন বিত্তশালীরা।
সাভার নাগরিক কমিটি’র সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল মোড়ল বলেন, উপজেলা পরিষদ একটি সুসংগঠিত ইউনিট যার মাধ্যমে উপজেলায় ত্রান তৎপরতাসহ প্রচার প্রচারনাগুলো সুষ্ঠ ভাবে হচ্ছে। তিনি বলেন, এজন্যই আমাদের সাভারে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাস সেই ভাবে ছড়াতে পারে নি। এ ধারাকে তিনি অব্যাহত রাখাও আহ্বান জানান।
সাভারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শরীফুল হাসান বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ উপজেলা পরিষদ ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে যে উদ্যোগ গ্রহন করেছেন তা নিঃসন্দেহে প্রশাসার দাবীদার।
সাভার উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত হোসেন বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীবের দিক নির্দেশনায় আজ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উদ্যোগী হয়ে মাঠে নেমেছেন। কাজ করছেন ঐক্যবদ্ধভাবে।
সাভার উৃপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীব বলেন, কোন কিছু চাওয়া কিংবা পাওয়ার আশায় নয়, মানবতার নেত্রী মাতৃতূল্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক-নির্দেশনায় উপজেলার জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে নিরলসভাবে কাজ করছি। সম্পৃক্ত করেছি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের ‍নেতৃবন্দকে। চেষ্টা করছি সাধ্যমতো করার।
মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব মোকাবেলায় কতিপয় আর হাইব্রিড নেতারা যখন পরিবার-পরিজন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে এমন অবস্থায় সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীবের জনসেবামূলক এসব কর্মকান্ড দেশের অন্যান্য জনপ্রতিনিধের জন্য দৃষ্টান্ত হতে পারে বলে মনে করছেন সুশীল সমাজের নেতৃবন্দ।

মোঃ হুমায়ুন কবির

সত্য প্রকাশে অঙ্গীকারবধ্য একটি সংবাদ মাধ্যম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *